মুক্তিযুদ্ধে স্বামীহারা স্ত্রীর গল্প ‘অপেক্ষা’

মাহবুব একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানীতে চাকরি করেন। অফিসের বসের মেয়ে তার থিসিসের জন্য মুক্তিযুদ্ধে স্বজনহারা কোন একটি পরিবারের  সাথে সরাসরি কথা বলতে চায় তার কাছে। সে তাকে বাসায় নিয়ে যায়—কেননা তারাই মুক্তিযুদ্ধে স্বজনহারা পরিবার।

মাহবুবের মা জানান, তার স্বামী মামুন সাহেব বঙ্গবন্ধুকে খুব ভালোবাসতেন। ৭ মার্চের ভাষনের পর তিনি বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। পরে মুক্তিযুদ্ধে যুক্ত হন। কিন্তু সেই যে বাড়ি ছেড়ে তিনি চলে যান আর কখনো ফিরে আসেননি। তিনি আদৌ বেঁচে আছেন না মারা গেছেন, তাও তিনি জানেন না।

মৃত্যুর আগে মাহবুবের মায়ের একমাত্র ইচ্ছা, স্বামী বেঁচে আছে না মারা গেছেন এটা জেনে যাওয়া। দেশ স্বাধীনের পরে তিনি অনেকের দুয়ারে ঘুরেছেন। কিন্তু সঠিক কোন তথ্য পাননি। তাই মনকেও বোঝাতে পারেন না।

মুক্তিযুদ্ধে স্বামীহারা এক স্ত্রীর ৪৭ বছরের অপেক্ষার এমনই গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘অপেক্ষা’।

নাটকটি নির্মাণ করেছেন চয়নিকা চৌধুরী। রচনা করেছেন শফিকুর রহমান শান্তনু। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুবর্ণা মুস্তাফা, আনিসুর রহমান মিলন, দীপা খন্দকার, কাজল সুবর্ণ ও আযম খান।

১৬ ডিসেম্বর রাত ৯টায় মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে এটিএন বাংলায় প্রচার হবে ‘অপেক্ষা’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *